শিরোনাম

Author Archives: Mohammad Kibria

বার্মিংহাম আনজুমানে আল ইসলাহ’র ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ৫ মার্চ।।প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

বার্মিংহাম প্রতিনিধি: আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের যোগ্য উত্তরাধিকার ও আদর্শবাহী ইসলামী সংগঠন আনজুমানে আল ইসলাহ ইউকে বার্মিংহাম শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন আগামী ৫ মার্চ সোমবার বেলা ১১:৩০ মিনিটের সময় আস্টন বাংলাদেশ মাল্টিপারপাস সেন্টারে অনুষ্ঠিত হবে। এতে বার্মিংহাম শাখার আওতাধীন সকল সদস্যকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য শাখার ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট মাওলানা আতিকুর রহমান ও জেনারেল সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ হুসাম উদ্দিন আল হুমায়দী অনুরোধ জানিয়েছেন।

সম্মেলন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা: আগামী ৫ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলনকে সফলের লক্ষে আনজুমানে আল ইসলাহ ইউকে বার্মিংহাম শাখার উদ্যোগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে আস্টন ইকবাল ব্যাংকুয়েটিং হলে এক প্রস্তুতি সভা অুনষ্ঠিত হয়। শাখার ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট মাওলানা আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে ও জেনারেল সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ হুসাম উদ্দিন আল হুমায়দীর সঞ্চালনায় উক্ত সভায় পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন শাখার প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারি মাওলানা এহসানুল হক।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শাখার ভাইস প্রেসিডেন্ট হাজী হাসন আলী হেলাল, জয়েন্ট সেক্রেটারি মাওলানা আব্দুল মুনিম, ক্যাশিয়ার হাজী সাহাব উদ্দিন, এডুকেশন এন্ড এমপ্লয়মেন্ট সেক্রেটারি মাওলানা বদরুল হক খান, নির্বাহী সদস্য হাফিজ উসমান খান সামিম, হাজী তেরা মিয়া প্রমুখ।
পরিশেষে মুনাজাতের মাধ্যমে সভার সমাপ্তি হয়।-সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

জয় অপহরণ ও হত্যা চেষ্টা মামলায় শফিক রেহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে এবং তাঁর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যাচেষ্টার ষড়যন্ত্রের মামলায় সাংবাদিক শফিক রেহমানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ। গত মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে (সিএমএম) এই অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা জালাল হোসেন বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘এ মামলায় অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ। মামলার কাগজপত্র আদালতের কাছে উপস্থাপন করা হয়েছে।’

মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত অন্য আসামিরা হলেন, আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, জাতীয়তাবাদী সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) সহসভাপতি মোহাম্মদ উল্লাহ মামুন, তাঁর ছেলে রিজভী আহাম্মেদ ওরফে সিজার এবং যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান ভূঁইয়া।

আদালত সূত্র বলছে, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ করে হত্যাচেষ্টা ষড়যন্ত্রের নির্দেশদাতা হিসেবে শফিক রেহমান ও মাহমুদুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। আর আসামি মোহাম্মদ উল্লাহর বিরুদ্ধে পরামর্শদাতার অভিযোগ এনেছে পুলিশ। মোহাম্মদ উল্লাহর ছেলে রিজভী আহাম্মেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের তদন্ত সংস্থা এফবিআইয়ের কাছ থেকে সজীব ওয়াজেদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করেন। পরে অন্য আসামিদের কাছে সেই তথ্য সরবরাহ করেন। অর্থায়ন ও পরামর্শদাতার অভিযোগ আনা হয়েছে মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যা চেষ্টা ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনে ডিবির পরিদর্শক ফজলুর রহমান ২০১৫ সালের ৩ আগস্ট পল্টন থানায় মামলা করেন। দণ্ডবিধির ৩০৭ এবং ১২০-বি ধারায় আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০১১ সালের সেপ্টেম্বর মাসের আগে যেকোনো সময়ে জাসাস নেতা মোহাম্মদ উল্লাহসহ বিএনপি ও বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটভুক্ত দলের উচ্চপর্যায়ের নেতারা ঢাকা শহরের পল্টনের জাসাস কার্যালয়ে ও যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহর ও যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় আসামিরা একত্র হয়ে বৈঠকে অংশ নেন। তাঁরা সজীব ওয়াজেদ জয়কে যুক্তরাষ্ট্রে অপহরণ করে হত্যার ষড়যন্ত্র করেছিলেন। অপরাধ ঘটানোর দায়িত্ব দেওয়া হয় রিজভী আহাম্মদকে।
২০১৬ সালের ১৬ এপ্রিল এ মামলায় সাংবাদিক শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তিনি জামিনে ছাড়া পান।

প্রসঙ্গত, জয়কে অপহরণ ও হত্যার পরিকল্পনা হয়েছিল নিউইয়র্কে। সেখানে এই মামলার বিচার সম্পন্ন হয়েছে। মামলার রায়ে সেখানকার বিএনপি নেতার ছেলে রিজভী আহমেদ সিজারের ৪২ মাসের কারাদণ্ড হয়। এ ছাড়া ঘুষ লেনদেনের জন্য এক এফবিআই এজেন্টের বন্ধুর ৩০ মাসের কারাদণ্ড হয়।

শামসুল হক’র কবিতা

Shamsul

 

 

মাতৃভাষা

অগণিত ভাষা শহীদের
রক্তে রাঙানো ২১শে ফেব্রুয়ারি
আমি কি ভুলিতে পারি?
বাংলা আমার প্রাণ, বাংলা আমার মান
বাংলাতেই গাইতে চাই জীবনের জয়গান।
মাতৃভাষাই শ্রেষ্ঠ ভাষা জীবনের সম্বল
এই ভাষাই হৃদয়ের একমাত্র অবলম্বন।
ভাষা আন্দোলন পেলো আন্তর্জাতিক খ্যাতি
তাই তো বিশ্ব দিতে বাধ্য হল মাতৃভাষার স্বীকৃতি।
এ ভাষাতেই স্বপ্ন দেখা, এ ভাষাতেই আশা
মাতৃভাষায় প্রকাশিত হৃদয়ের পরিভাষা।
মা আমার দেশ, ভাষা মোদের জান
জীবন দিয়ে রাখবো ধরে মাতৃভাষার মান।

 

 

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে সপ্তগ্রাম হলধারকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ে রশিদা খাতুন চৌধুরীর অনুদান

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার আমরিয়া নিবাসী বিশিষ্ট সমাজসেবক ও দানশীল ব্যক্তিত্ব আলহাজ¦ বশির আহমদের সহধর্মিনী দেওয়ান রশিদা খাতুন চৌধুরী সপ্তগ্রাম হলধারকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ে ২ লক্ষ টাকার অনুদান প্রদান করেছেন। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি সোমবার তার নিজ বাসভবন থেকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ জালাল উদ্দিন ও পরিচালনা কমিটির পক্ষে আব্দুল হামিদ নগদ ২ লক্ষ টাকার অনুদান গ্রহণ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সৈয়দা মাহমুদা খানম চৌধুরী, দেওয়ান ফরিদা খানম চৌধুরী, আলহাজ¦ সামছুন নাহার, ইফতেখার হোসেন লেচু মিয়া, কবি আশিন আমরিয়া, গোলাম মর্তুজা, নাজমুল হোসাইন, নুরুল ইসলাম, বেলায়েত হোসেন, জান্নাতুন নাহার জাহানারা, আজমল হোসাইন, ক্বারী জয়নাল আবেদিন, হাফিজ ছাদিকুর রহমান, আরজু মিয়া, সাজ্জাদ মিয়া, লেবু আহমদ, আশিকুর রহমান, গোলাম জিলানী প্রমুখ। অনুদান গ্রহণের পর সপ্তগ্রাম হলধারকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে এলাকার উন্নয়নে তার এই আন্তরিক প্রচেষ্টার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে নেতৃবৃন্দ বলেন, আলহাজ বশির আহমদ বিদেশের মাটিতে থেকেও দেশের মাটি ও মানুষের কল্যাণে আর্ত-মানবতার সেবায় নিজেকে উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। এ অঞ্চলের আর্ত-সামাজিক উন্নয়নের সুদীর্ঘ ধারাবাহিকতা হচ্ছে আজকের এই অনুদান।

শেষে সবার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

কার্গো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পরই শাহজালাল বিমানবন্দরে ফের নিরাপত্তা বিঘ্নিত।। কর্তৃপক্ষ বিব্রত

আত্মীয়কে এগিয়ে দিতে পুলিশের পোশাক পরে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ব্যাংককগামী থাই এয়ারওয়েজের বিমানে উঠে বসেছিলেন পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আশিকুর রহমান। বিষয়টি ধরা পড়লে ‘নিরাপত্তা ঝুঁকি’ রয়েছে বলে পাইলট বিমান চালাতে অস্বীকৃতি জানান। পরে এক ঘণ্টা দেরিতে উড়োজাহাজটি আকাশে ওড়ে।

গতকাল শনিবার দিবাগত রাতে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ ঘটনা ঘটে। ব্যাংককগামী টিজি-৩৪০ উড়োজাহাজটির শনিবার রাত দুইটার সময় ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। পরে সিভিল অ্যাভিয়েশন ও শাহজালাল বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে রাত তিনটার দিকে উড়োজাহাজটি এক ঘণ্টা দেরিতে ঢাকা ছাড়ে।

আলোচিত এসআই আশিকুর রহমান ঢাকা রেঞ্জে কর্মরত। সম্প্রতি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) বদলি হয়েছেন। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে পুলিশ ও বিমানবন্দরে নিয়োজিত বিভিন্ন সংস্থা নানাভাবে চেষ্টা করে গেছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

১০ শর্তে প্রায় দুই বছর পর আজ রোববার বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাজ্যে সরাসরি কার্গো পরিবহনে বাধা কাটে। নিরাপত্তাসহ কয়েকটি কারণে ২০১৬ সালের ৮ মার্চ যুক্তরাজ্যের ট্রান্সপোর্ট ডিপার্টমেন্ট হজরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে সরাসরি কার্গো পণ্য পরিবহনে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এর মধ্যেই শনিবারের এ ঘটনা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে বিব্রত করেছে।

বিমানবন্দর সূত্র জানায়, শনিবার রাতে রেঞ্জ পুলিশের নীল ইউনিফরম পরে এসআই আশিকুর রহমান বিমানবন্দরে ঢোকেন। কর্মকর্তারা তাঁকে আটকালে তদন্তের প্রয়োজনে ভেতরে যাওয়া প্রয়োজন বলে তিনি গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করে ভেতরে ঢুকে যান। পরে তাঁকে আবিষ্কার করা হয় থাই এয়ারওয়েজের ভেতরে। বিমানটি তখন উড্ডয়নের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় বিমানে তাঁর বেআইনি অবস্থান শনাক্ত হলে বিমানকর্মীরা তাঁকে নামিয়ে আর্মড পুলিশের হেফাজতে দেন। বিমানটির উড্ডয়ন বাতিল করা হয়। ভ্রমণের ন্যূনতম কাগজপত্র ছাড়া বিমানে কারও উঠে বসার পরে নিরাপত্তা ঝুঁকি দেখিয়ে বিমান চালাতে অস্বীকৃতি জানান ক্যাপ্টেন।

এরপরে সিভিল এভিয়েশন ও বিমানবন্দরের লোকজন বিমানটির ক্যাপ্টেনের সঙ্গে দেনদরবারের পরে তিনি বিমান নিয়ে আকাশে ওড়েন।

আটকের পর ওই এসআই সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বলেন, তিনি তাঁর মামিকে এগিয়ে দিতে বিমানের ভেতরে গিয়েছিলেন।

এদিকে এ ঘটনায় চরম বিব্রত হয়েছেন বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা। অনেকেই এ বিষয়ে কথা বলতে চাননি। কেউ কেউ বিষয়টিকে গণমাধ্যমে না আনার কথা বলেছেন। তবে বিষয়টি যে একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জন্য গুরুতর নিরাপত্তা লঙ্ঘন, তা সবাই স্বীকার করেছেন। সাধারণত বিমানবন্দরের এমন জায়গায় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, তল্লাশি ছাড়া কারোরই ঢোকার কথা নয়।

শাহজালাল বিমানবন্দরের পরিচালক কাজী ইকবাল করিম রোববার বিকেলে সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘পুলিশের পোশাকের এ ধরনের অপব্যবহার খুবই দুর্ভাগ্যজনক। আমরা যখন অনেক চেষ্টার পরে একটা ফল (যুক্তরাজ্যের কার্গো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার) পেতে যাচ্ছি, তার আগের দিন পুলিশ কর্মকর্তার এ ঘটনা খুবই অনাকাঙ্ক্ষিত। আমরা পুলিশের সর্বোচ্চ মহলের কাছে তাঁর সর্বোচ্চ শাস্তির সুপারিশ করব। আমরা একদিকে চেষ্টা করে যাচ্ছি, আর এর মধ্যে ইউনিফরমধারী কেউ যদি এ রকম করেন, তাহলে তো চলবে না। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হলে এ ধরনের ঘটনা ঠেকানো যাবে না।’

তবে এ বিষয়ে বিমানবন্দর থানায় কিছু জানানো হয়নি বলে জানিয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আজম মিয়া। তিনি বলেন, ‘আমাদের কিছু জানানো হয়নি, আর পুলিশের কোনো লোককে থানা হেফাজতে রাখাও হয়নি।’

বিমানবন্দরের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা রাশিদা সুলতান গতকাল বিকেলেও এ ঘটনার কিছুই জানেন না বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানান। তবে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, আটক আশিকুরকে গতকাল দুপুরে ঢাকা রেঞ্জের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যে কার্গো পরিবহনে বিমানের বাঁধা কাটলো

ঢাকা-লন্ডন রুটে সরাসরি কার্গো পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। আজ রোববার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেক এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার কথা জানান।

এরপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার–সংক্রান্ত পত্র বেসামরিক বিমান পরিবহনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামালের কাছে হস্তান্তর করেন। এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ফলে বাংলাদেশ থেকে যেকোনো পণ্য যেকোনো বিমানে করে লন্ডনে পাঠানো যাবে।

অ্যালিসন ব্লেক বলেন, কঠোর পরিশ্রম ও দুই দেশের আন্তরিক সহযোগিতার কারণেই সমস্যা চিহ্নিত করে সেখান থেকে উত্তরণ সম্ভব হয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ব্লেক বলেন, নিষেধাজ্ঞা দেওয়া বা প্রত্যাহার কোনোটাই রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ছিল না। সম্পূর্ণ নিরাপত্তার কারণেই এটা করা হয়েছিল।

বিমানমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য তাদের এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় অস্ট্রেলিয়াও তাদের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেবে, এমনটা আশা করা যায়।

২০১৬ সালের ৮ মার্চ যুক্তরাজ্যের ট্রান্সপোর্ট ডিপার্টমেন্ট হজরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে সরাসরি কার্গো পণ্য পরিবহনে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর আগে ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশ থেকে আকাশপথে কার্গো পাঠানোর ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে অস্ট্রেলিয়া।

বার্মিংহাম লতিফিয়া ফুলতলী কমপ্লেক্সের কার্যকরী কমিটির পুনর্গঠন প্রিন্সিপাল মাওলানা এম এ কাদির আল হাসান চেয়ারম্যান মোঃ মিসবাউর রহমান সেক্রেটারি আমিরুল ইসলাম জামাল ট্রেজারার

মোঃ হুসাম উদ্দিন আল হুমায়দী: যুক্তরাজ্যে অন্যতম বৃহৎ প্রতিষ্ঠান লতিফিয়া ফুলতলী কমপ্লেক্সের উদ্যোগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি সোমবার দুপুরে ‘দি ব্রিটিশ মুসলিম স্কুল হলে কমপ্লেক্সের কমিটি পুনর্গঠনের লক্ষে পেট্টন মেম্বারদের নিয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন কমপ্লেক্সের কমিটির চেয়ারম্যান প্রিন্সিপাল মাওলানা এম এ কাদির আল হাসান এবং সঞ্চালনা করেন কমপ্লেক্সের সেক্রেটারি মিসবাহুর রহমান।
উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন লতিফিয়া ফুলতলী কমপ্লেক্সের অন্যতম ট্রাস্টি যুক্তরাজ্যের বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব আলহাজ নাছির IMG_6819আহমদ, অন্যতম ফাউন্ডার মেম্বার আলহাজ আবুল হোসাইন (সাত্তার মিয়া), ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ কাজী আঙ্গুর মিয়া, হাজী কামারুল হাসান চুনু, আলহাজ গয়াস মিয়া, মাওলানা রফিIMG_6820ক আহমদ, মোঃ খুরশিদ উল হক, আব্দুল ইকবাল, মোঃ আব্দুল হাই, মোঃ মন্তাজ আলী, মোহাম্মদ শাহজাহান, মোঃ এমদাদ হোসাইন, মাস্টার মোঃ আব্দুল মুহিত, মোঃ আমিরুল ইসলাম জামাল, ফিরুজ খান, মাওলানা বদরুল হক খান, হাজী হাসন আলী হেলাল, মোঃ সাইফুল ইসলাম, মাওলানা নুরুল আমিন, মাওলানা মোঃ হুIMG_6821সাম উদ্দিন আল হুমায়দী, মোঃ রায়হান আহমদ চৌধুরী, মাওলানা গুলজার আহমদ, মাওলানা মোঃ আব্দুল মুনিম, মাওলানা মাহবুব কামাল, মোঃ আতাউর রহামন, মোঃ আকিকুর রহমান, হাজী ফারুক মিয়া, হাজী তেরা মিয়া, সুফী ইদরিছ আলী, হাফিজ আলী হোসেন বাবুল, মাওলানা এহসানুল হক, হাফিজ মাসুম আহমদ, হাজী আবুল কাশেম, কারী মাহফুজুল হাসান খান ও হাফিজ রুমেল আহমদ।
সভায় বিগত বছরের রিপোর্ট পেশ করা হয় এবং তা প্রশংসিত ও সর্বসম্মত ভাবে গৃহীত হয়। সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের মতামতের ভিত্তিতে নি¤œলিখিত কমিটি গঠণ করা হয়।
চেয়ারম্যান প্রিন্সিপাল মাওলানা এম এ কাদির আল হাসান, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ কাজী আঙ্গুর মিয়া, আলহাজ মাহবুবুর রহমান চৌধুরী রুহেল ও মাওলানা রফিক আহমদ। সেক্রেটারি মোঃ মিসবাউর রহমান, এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি মোঃ খুরশিদ উল হক ও মোঃ আব্দুল হাই, ট্রেজারার মোঃ আমিরুল ইসলাম জামাল, এসিস্ট্যান্ট ট্রেজারার মাওলানা গুলজার আহমদ, প্রেস এন্ড পাবলিসিটি সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ হুসাম উদ্দিন আল হুমায়দী, মেম্বারশীপ সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ আব্দুল মুনিম, জয়েন্ট মেম্বারশীপ সেক্রেটারি মোঃ সাহাব উদ্দিন, অরগেনাইজিং সেক্রেটারি হাসন আলী হেলাল, জয়েন্ট অরগেনাইজিং সেক্রেটারি মোঃ সাইফুল আলম, এক্সিকিউটিভ মেম্বার এমদাদ হোসাইন, মোহাম্মদ শাহজাহান, হাফিজ আলী হোসেন বাবুল, হাজী ফারুক মিয়া, হাজী আবুল কাশেম, মাওলানা বদরুল হক খান, হাজী আজির উদ্দিন, রায়হান আহমদ চৌধুরী, আব্দুল ইকবাল, হাজী আবুল হোসাইন (সাত্তার মিয়া) ও হাজী মন্তাজ আলী।
পরিশেষে বিশেষ মুনাজাতে বিশ্বমুসলিমের শান্তি, সৌহার্দ্য ও উন্নতির জন্য দোয়া করা হয়।

মোঃ আব্দুল গফুর আর নেই।। বিভিন্ন মহলের শোক

মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, লন্ডন: হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের বানিউন গ্রামের মোঃ আব্দুল গফুর গত ২৫ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকাল আনুমানিক ৮টার সময় পূর্ব লন্ডনের ক্যাসন স্ট্রিটস্থ নিজ বাসগৃহে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। মৃত্যু কালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭০ বছর।

২৭ জানুয়ারি রোজ শনিবার বাদ জোহর ব্রিকলেন জামে মসজিদে মরহুমের জানাজার নামাজ শেষে তাঁর মৃতদেহ গার্ডেন অব পিস-এ সমাহিত করা হয়। মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রী, ২ পুত্র, ৩ কন্যা, ভাইবোন, আত্মীয়-স্বজন ও অসংখ্য গুনগ্রাহি রেখে গেছেন।

মরহুমের মৃত্যুতে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও ব্যক্তিগণ শোক প্রকাশ করে বিবৃতি প্রেরণ করেছেন। বিবৃতিতে তাঁরা জানান, মরহুম মোঃ আব্দুল গফুর একজন সজ্জন, বন্ধুবৎসল, নির্বিরোধী ও সামাজিক ব্যক্তিত্বসম্পন্ন মানুষ ছিলেন। দীর্ঘদিন যাবৎ পূর্ব লন্ডনে বসবাস করার কারণে বাঙালি কমিউনিটির কাছে তিনি একজন সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব ছিলেন। বাংলাদেশের যে কোনো প্রয়োজনে যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী বাঙালি কমিউনিটির সাথে সম্পৃক্ত থেকে তিনি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের অংশীদার হয়েছেন। বিবৃতিতে তাঁরা মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি ও মাগফেরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দাতাগণ হলেন, যুক্তরাজ্য হবিগঞ্জ এসাসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ এ রউফ, সহ-সভাপতি সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরীসহ ফিরুজ উদ্দিন, আবু ইউসুফ চৌধুরী, হিফজুর রহমান চৌধুরী, এহিয়া চৌধুরী, নাজমুল ইসলাম; যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ইনাতগগঞ্জ বাসীর পক্ষে মোঃ নজরুল ইসলাম, সৈয়দ ইকবাল আহমদ, তাহের আহমদ, নাসির আহমদ শ্যামল, সিরাজ উদ্দিন, হেলাল আহমদ; ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল বাতেন, বাংলাদেশ ক্যাটরার্স এসোসিয়েশনের সাবেক মেম্বারশিপ সেক্রেটারি সাইফুল আলম, ইনাতগঞ্জ দীঘলবাক গণদাবি বাস্তবায়ন পরিষদের আহ্বায়ক মোঃ দেলোয়ার হোসাইন দীপু, যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, মোঃ আতিকুর রহমান লিটন ও আছাবুর রহমান জীবনসহ মোঃ সালাতুল ইসলাম, জাকারিযা হোসাইন, তারেক আহমদ, মোঃ কামরুল হাসান, সালাম উদ্দিন উজ্জল, রিপন আহমদ, মোঃ আব্দুল মোতাহিদ, শাহাজাহান আলী, মোঃ আকিকুর রহমান, জিল্লুর রহমান, রোকন উদ্দিন, মামুন আহমদ, দোলন আহমদ, মুহিত উদ্দিন, দুলেনুর রহমান, কামাল আহমদ, শাহীনুর রহমান, আক্তার হোসাইন আলী, সোহেল আহমদ, সাইফুল আলম শিপু প্রমুখ।

বাংলা একাডেমি পুরস্কার পাচ্ছেন ১২ জন

এ বছর বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন সাহিত্যের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় ১০ বিভাগে ১২ জন বিশিষ্ট কবি, লেখক ও গবেষক। শনিবার একাডেমির শহিদ মুনীর চৌধুরী সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পুরস্কারপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ২০১৭ পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন কবিতায় মোহাম্মদ সাদিক ও মারুফুল ইসলাম, কথাসাহিত্যে মামুন হুসাইন, প্রবন্ধে অধ্যাপক মাহবুবুল হক, গবেষণায় রফিক উল্লাহ খান, অনুবাদ সাহিত্যে আমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সাহিত্যে কামরুল ইসলাম ভূঁইয়া ও সুরমা জাহিদ, ভ্রমণ কাহিনিতে শাকুর মজিদ, বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনিতে মোশতাক আহমেদ, নাটকে মলয় ভৌমিক ও শিশুসাহিত্যে ঝর্নাদাশ পুরকায়স্থ।

বিজয়ীদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা, ক্রেস্ট ও সনদ দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, গতকাল শুক্রবার একাডেমির কার্যনির্বাহী পরিষদ এ বছরের বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারপ্রাপ্তদের নাম অনুমোদন করে। আসাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আবুল হাসনাত, মামুনুর রশীদ, অধ্যাপক সৈয়দ মনজরুল ইসলাম, অধ্যাপক ফকরুল আলম, কবি রুবি রহমান এবং বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

আগামী পয়লা ফেব্রুয়ারি অমর একুশে গ্রন্থমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখকদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে পুরস্কার তুলে দেবেন।

পুরস্কার ঘোষণার সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন একাডেমির পরিচালক শাহিদা খাতুন, জালাল আহমেদ প্রমুখ।

বার্মিংহামে অভিযাত্রিক পাঠক ফোরামের উদ্যোগে হাফিজ উসমান খান শামীমের পিতার মৃত্যুতে দোয়া মাহফিল

বার্মিংহাম ২৩ জানুয়ারি: বাংলা ইসলামিক তাহযীব তামাদ্দুন রক্ষার মুখপাত্র মাসিক অভিযাত্রিক পাঠক ফোরাম ইউকে বার্মিংহাম শাখার উদ্যোগে গত ২৩ জানুয়ারি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শাখার সেক্রেটারি বার্মিংহাম আল ইসলাহ’র নির্বাহী সদস্য হাফিজ উসমান খান শামীমের পিতা মরহুম সাজিদ খানের মৃত্যুতে ইসালে সাওয়াব উপলক্ষে বার্মিংহাম শাহজালাল জামে মসজিদে এক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত দোয়া মাফিলে উস্থিত ছিলেন বার্মিংহাম শাহজালাল জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব মাওলানা নুরুল আলম, অভিযাত্রিক পাঠক ফোরাম বার্মিংহাম শাখার চেয়ারম্যান ইউকে মিডল্যান্ডস আল ইসলাহ’র জয়েন্ট সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ হুসাম উদ্দিন আল হুমায়দী, স্যান্ডওয়েল আল ইসলাহ’র সেক্রেটারি হাফিজ আলী হোসেন বাবুল, বার্মিংহাম আল ইসলাহ’র জয়েন্ট সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ আব্দুল মুনিম, বার্মিংহাম আল ইসলাহ’র প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারি মাওলানা এহসানুল হক, মোঃ বিরাম আলী, কমিউনিটি নেতা আলহাজ সিরাজুল ইসলাম, হাফিজ আবুল কালাম, হাফিজ কবির আহমদ, ক্বারি সৈয়দ শহিদুর রহমান, মোঃ মশিউর রহমান এবং বার্মিংহাম অভিযাত্রিক পাঠক ফোরামের সেক্রেটারি হাফিজ উসমান খান শমীম। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Scroll To Top

Design & Developed BY www.helalhostbd.net