শিরোনাম

সবুজ বাংলা

নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

  নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

নাদামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৬

নবীগঞ্জে পুত্রের হাতে পিতা খুন : আটক ২ 

রাকিল হোসেন, নবীগঞ্জ থেকে: নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের সদরাবাদ গ্রামে ঘাতক পুত্রের হাতে নির্মমভাবে খুন হলেন ৬৫ বছর বয়সী মোক্তার উল্ল্যা নামের এক দুবাই প্রবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার রাত প্রায় সাড়ে ১২টার সময়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরন করেছে। ঘটনার পরপর ঘাতক পুত্র জন সম্মুখে বীর দর্পে পালিয়ে যায়। ঘটনায় সাথে জড়িত সন্দেহে নিহতের যুবতি কন্যা ডালিনা বেগম (২২) ও প্রতিবেশী রাফি আহমদ (৩০) নামের যুবককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করেছে। নিহতের পারিবারিক ও সরেজমিনে জানাযায়, নবীগঞ্জ উপজেলার উল্লেখিত গ্রামের মৃত রমিজ উল্লার পুত্র মুক্তার উল্লাহ প্রায় বছর খানেক পূর্বে দুবাই থেকে বাড়িতে আসেন। বয়সের ভারে নতজানু ওই বৃদ্ধা কোন রোজিরোজগার করতে পারেন নি। তার ২ছেলে ও ৩ মেয়ে বড় ছেলে সুমন সিলেট শহরে সিকিউরিটির কাজ করে। ঘাতক পুত্র জীবন শেরপুর মাইওয়ান ইলেক্ট্রনিক্স এ শ্রমিকের কাজ করে । কোন রকম চলছিল তাদের জীবন সংসার। সংসারের ভরণপোষন ও একটি মেয়ের বিবাহ দিতে গিয়ে কিছু বাড়ি রকম জায়গা বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত নেন মোক্তার উল্লাহ। এই জায়গা বিক্রয় নিয়ে পিতা পুত্রের মধ্যে গত ২সপ্তাহ ধরে মনোমালিন্য চলে আসছিল। এরই জের ধরে ঘটনার উল্লেখিত রাতে পাশ্ববর্তী প্রতিবেশী মৃত আহমদ উল্লার পুত্র রাফি আহমদ এর বাড়িতে বসা ছিলেন মোক্তার উল্লাহ। ওই সময়ে তারই জামাতা একই গ্রামের মৃত ওয়াজিব উল্লার পুত্র আজির উদ্দিন (৩৫) ও তার শশুরকে বিষয়টি মিমাংশা করার কথা বলে বাড়িতে নিয়ে আসে। আসার ঘাতক পুত্র জীবন সাথে সাথেই ধারালো অস্ত্র (ছোরা) নিয়ে বৃদ্ধা পিতাকে ধাওয়া করে। এ সময় পিতাকে বাড়ির পুকুরের পানিতে ফেলে বুকের মধ্যে ঘাই মেরে মৃত্যু নিশ্চত করে। হত্যাকান্ডে পর জীবন ব্যবহৃত রক্তমাখা ছোরা হাতে নিয়ে বীর দর্পে সে ঘটনা স্থল ত্যাগ করে। এ সময় বাড়ির লোকজনের আর্ত চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে পুকুরের পানি থেকে ডুবন্ত লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।
নিহতের স্ত্রী নাজমা বেগম বলেন, আমার স্বামী বিদেশ থেকে আসার পর কয়েক লক্ষ টাকা খুইয়েছেন, অবশেষে তার এ জায়গা বিক্রিকে আমরা কেউ মেনে নিতে পারিনি। তবে, আমার কুলাঙ্গার পুত্র তার বাপকে এভাবে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে। আমি মা হয়েও তার ফাঁসি চাই।
গ্রামের সাবেক মেম্বার মোঃ আলম মিয়া, একে ফজলু, কামরুল ইসলাম স্বপন, আমীর আলী সহ অনেকেই বলেন, এমন হত্যাকান্ডের সংবাদ পেয়ে আমরা গ্রামবাসী তাৎক্ষনিক ছুটে এসেছি। এই হৃদয়বিধারক কর্মকান্ডে আমরা গ্রামবাসী গভীর শোকাহত ও মর্মাহত। আমরা গ্রামবাসী তার সুষ্ট তদন্তে খুনি জীবনের ফাঁসি দাবী করছি।
আরেকটি সূত্র জানায়, পুলিশের হাতে ধৃত মৃত আহমদ উল্লার পুত্র রাফি আহমদ মৌলভীবাজার পাঁতাকুড়ি অফসেট প্রেসের একজন কম্পিউটার অপারেটর। বৃদ্ধ মুক্তার মিয়া তার সাথে কিছু জায়গা বিক্রয়ের আলাপ আলোচনা করছিলেন তার বাড়িতে বসেই। এ ছাড়াও গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী কামরুল ইসলাম স্বপন ও আমির আলী সহ আরো কয়েক জনের নিকট তিনি বাড়ির ৭২শতক ভূমির মালিকার মধ্যে ২০শতক জায়গা বিক্রয়ের কথা বার্তা বলে আসছিলেন। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে তার কুলাঙ্গার পুত্র জীবন। অবশেষে সামান্য কিছু জায়গার জন্য কেড়ে নিল জন্ম দাতা পিতার তাজা প্রাণ। এ ঘটনায় এলাকায় নিন্দার ঝড় বইছে। উপজেলার সর্বত্র তুলাপাড় সৃষ্টি হয়েছে।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানা ওসি আব্দুল বাতেন খান বলেন, এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় থানায় এখনো কোন মামলা হয়নি, প্রস্তুতি চলছে। তবে, জিজ্ঞাসাবারে জন্য ২জনকে আটক করা হয়েছে ।

হবিগঞ্জ জেলায় ইউপি নির্বাচন শুরু ৩১ মার্চ থেকে

হবিগঞ্জ জেলায় ৭৮টি ইউপি-তে ৩১ মার্চ থেকে নির্বাচন শুরু হবে।  আজমিরীগঞ্জ উপজেলার ৫টি ইউ.পি’র নির্বাচন দিয়ে এর শুরু হবে।

৩য় ধাপে ২৩ এপ্রিল বানিয়াচঙ্গ উপজেলার ৪নং বানিয়াচঙ্গ দক্ষিণ পশ্চিম ইউ.পি ব্যতিত ১৪টি ইউ.পি ও লাখাই উপজেলার ৬টি ইউ.পি’র নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

৪র্থ ধাপে নবীগঞ্জ উপজেলার ১৩টি ইউ.পি’র নির্বাচন হবে ৭ মে। ৫ম ধাপে মাধবপুর উপজেলার ১১টি ইউ.পি’র নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হবে ২৮ মে। ৩য় ধাপে ২৩ এপ্রিল বানিয়াচঙ্গ উপজেলার ১৪টি ইউ.পিতে নির্বাচন অথচ একমাত্র ৪নং বানিয়াচং সদর দক্ষিণ পশ্চিম ইউ.পিতে ৬ষ্ঠ ধাপে ০৪ জুন নির্বাচন বিষয়ে একাধিক প্রশ্নোত্তরে নির্বাচন কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ জানান, ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ওই ইউ.পিতে সম্পূর্ণ পাশ্চাত্য দেশের অনুকরনে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে মডেল নির্বাচনের রেকর্ড কমিশনে রয়েছে। তখন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়া কারনে দেশ বিদেশে সরকার ও নির্বাচন কমিশন এর ভাবমুর্তি উজ্জল হয়েছিল বলেই সবকিছু পর্যালোচনা করে বিশেষ বিবেচনায় ওই ইউ.পির নির্বাচনের দিনক্ষণ ধার্য্য করা হয়েছে বলে জানান ইসি।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইউ.পি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী মমিন বলেন, হবিগঞ্জ জেলা ইউ.পি চেয়ারম্যান সমিতির পক্ষ থেকে ৮ উপজেলার ৭৮ ইউ.পিতে নির্বাচনের সিডিউল বিষয়ে সুবিবেচনার জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগ ও নির্বাচন কমিশনে স্মারক লিপি আকারে প্রতিবেদন দেওয়া হয়েছিল। প্রতিবেদনে ছাত্রদের পরীক্ষা ও কৃষকদের ধান কাটার মৌসুমে নির্বাচন না করার জন্য উল্লেখ ছিল।

তিনি এর অতিরিক্ত তথ্য প্রদানে অপারগতা প্রকাশ করে সরকার ও ইসিকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, বিষয়টি সম্পূর্ণ নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার।

প্রজন্ম মিরসরাই এর ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

imageimage

মিরসরাই সংবাদদাতা: নগরের খুলশী লায়ন্স চক্ষু হাসপাতাল সংলগ্ন হালিমা রোকেয়া মেমোরিয়াল হলে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি মামুনুর রশিদ মামুনের পরিচালনায় ও তানভীর হোসেন চৌধুরী তপুর সভাপতিত্বে প্রজন্ম মিরসরাই এর ৫ম প্রতিষ্টা বার্ষিকী উদযাপন ও নতুন কমিটি ঘোষনা হয়৷উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অন্ড এক্রেচেঞ্চ কমিশনের কমিশনার জনাব প্রফেসর হেলাল উদ্দিন নিজামী৷বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লায়ন এম ডি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী,লায়ন হাসিনা খান,লায়ন্স জিনাত কোমর রিটা,খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ নিজাম উদ্দীন, সদরঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মাঈনুল ইসলাম ভূঁইয়া৷আরো উপস্থিত ছিলেন প্রজন্ম মিরসরাই এর উপদেষ্টা শেখ মোহাম্মদ আতাউর রহমান, মোহাম্মদ নুরুল হুদা, আলহাজ্ব মেজর মোস্তফা(অবঃ),আবদুল আওয়াল চৌধুরী, লায়ন্স ডঃ কামাল উদ্দিন সহ আরো অনেকে৷
এতে আরো বক্তব্য রাখেন প্রজন্ম মিরসরাই এর পরিচালক দেলোয়ার হোসেন,ফোরকান,রায়হান ইসলাম,রহিম,ফয়সাল ও সহ সভাপতি রাজিব চন্দ দাশ এবং নাজিম,তোফাজ্জল,নূপূর,জাহিদ সহ প্রমূখ৷
সংগঠনের নির্বাহি পরিচালক ইউনুচ নূরী নিয়াজ মোরশেদ নিপু কে সভাপতি ও গোলাম রাব্বানী কে সাধারণ সম্পাদক করে মোট২১ জনের কর্জকরি কমিটি ঘোষনা করেন এবং তৌফিকুল হাসান ভূইয়া কে প্রধান ইউনিয়ন সমন্বয়ক করে ১৬ ইউনিয়ন ও ২পৌরসভায় মোট ৪২ জনের সমন্বয় কমিটি ঘোষণা করে কেক কাটার মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়৷

নবীগঞ্জ পৌরসভার নতুন মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরীর দায়িত্ব গ্রহণ

উত্তম কুমার পাল হিমেল ও রাকিল হোসেন নবীগঞ্জ থেকেঃ ব্যপক উৎসাহ ও উৎসবমূখর পরিবেশে নবীগঞ্জের নব নির্বাচিত পৌর মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী দায়িত্ব গ্রহন করেছেন। ৮ ফেব্রুয়ারী সোমবার সকালে নবীগঞ্জ পৌরসভা অফিস মাঠ প্রাঙ্গনে আনুষ্ঠানিকভাবে মিষ্টি বিতরণীর মধ্য দিয়ে তিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলি ভবি মজুমদারের সভাপতিত্বে ও অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ৩য় বারের মতো নির্বাচিত কাউন্সিলর নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এটি এম সালাম। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-  সাবেক সাংসদ ও  জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শেখ সুজাত মিয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন- উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা বেগম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রথীন্দ্র চন্দ্র দেব, থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান সেফু। এতে বক্তব্য রাখেন- ইউপি চেয়ারম্যান আঃ মুক্তাদির চৌধুরী, আনোয়ারুর রহমান, সৈয়দ খালেদুর রহমান খালেদ, ছালিক মিয়া, নবীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আব্দুল গফুর, নব-নির্বাচিত কাউন্সিলর আব্দুস সালাম, বাবুল চন্দ্র দাশ, ৪ বারের নির্বাচিত কাউন্সিলর আলা উদ্দিন, সাবেক কাউন্সিলর শাহ রিজভী আহমেদ খালেদ, রুহুল আমীন রফু, নব-নির্বাচিত কাউন্সিলর জাকির হোসেন, কবির মিয়া, জাহেদ চৌধুরী, প্রানেশ দেব প্রমূখ। স্বাগত্ব বক্তব্য রাখেন, পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলি ও ভারপ্রাপ্ত সচিব ভবি মজুমদার। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন- সাবেক কাউন্সিলর যুবরাজ গোপ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত করেন পৌরসভার কর আদায়কারী ইকবাল আহমদ ও গীতাপাঠ করেন সুকেশ চক্রবর্ত্তী। নতুন মেয়রকে নিয়ে কবিতা আবৃতি করে পৃথিশ চক্রবর্ত্তী। সভা শেষে মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরীকে বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। এর পূর্বে তিনি প্যানেল মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ।

ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জামাল হোসাইন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রার্থী

নবীগঞ্জ (ইনাতগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার ৩ নং ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন ইউনিয়নের প্রজাতপুর গ্রামের যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের সভাপতি জামাল হোসাইন।

আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা আমির হোসেন আমু’র সাথে নিউইয়র্কে

আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা আমির হোসেন আমু’র সাথে নিউইয়র্কে

তরুণ বয়স থেকেই যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জামাল হোসাইন ইনাতগঞ্জ এলাকার বিভিন্ন আর্থসামাজিক উন্নয়নে অংশ নিয়ে আসছেন। এলাকার দরিদ্র জনসাধারণের জন্য বাড়িয়েছেন সহায়তার হাত, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে অংশ নিয়েছেন। তাছাড়াও কোন নির্বাচিত প্রতিনিধি না হয়েও ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের রমজানপুর থেকে বানিউন্দ হয়ে প্রজাতপুরের রাস্তার মাটি ভরাট এবং বান্দের বাজার থেকে কৈখাইড় জামে মসজিদ পর্যন্ত রাস্তার মাঠি ভরাট ও পাকাকরণ কাজ সম্পন্ন করতে তিনি এলাকার অন্যান্যদের সাথে মিলে মিশে কাজ করেছেন। এর জন্য তিনি সরকারের বিভিন্ন মহলে এবং এলজিইডি’র সাথে যোগাযোগ করে রাস্তা দুটোর কাজ সম্পন্ন করার কাজে অংশ গ্রহণ করেছেন । রমজানপুর ভায়া বানিউন্দ প্রজাতপুরের রাস্তাটি এই মুহূর্তে পাকাকরণের প্রক্রিয়ায় রয়েছে । সম্প্রতি সংবাদ২৪ডটকম এর সাথে এক সাক্ষাতকারে তিনি এসব কথা জানিয়েছেন।

আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা তোফায়েল আহমেদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে

আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা তোফায়েল আহমেদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রে

জামাল হোসাইন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সে হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের সাথে তাঁর ব্যক্তিগত সুসম্পর্ক রয়েছে। আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দল ও এলাকার উন্নয়নের সাথে সম্পৃক্ততার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয় লাভের ব্যাপারে তিনি আত্মপ্রত্যয়ী। তিনি জানান, দল যদি তাঁকে মনোনয়ন দেয় তাহলে ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের প্রবীণ, যুবক ও নবীনদের সমর্থন ও সহায়তায় তিনি জয় লাভ করতে সক্ষম হবেন।

যুক্তরাষ্ট্রে এডভোকেট আবু জাহির এমপির সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে

যুক্তরাষ্ট্রে এডভোকেট আবু জাহির এমপির সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে

তিনি জানান, এলাকায় অনেক মেধাবী  যুবক-তরুণ রয়েছেন যারা সঠিক দিক নির্দেশনার অভাবে বেকার সময় কাটাচ্ছেন। তিনি তাঁদের নিয়ে স্থানীয় এবং সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সমন্বয়ে  একটি দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা করে তা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিবেন।

তিনি জানান, জনসেবা করতে হলে জনপ্রতিনিধিই হতে হবে এমন কোন শর্ত নেই। তবে ব্যক্তিগতভাবে কোন উন্নয়নমূলক কাজে অংশ নিলে অনেক সীমাবদ্ধতা দেখা দেয়। তাই তিনি মনে করেন, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং সরকারের কাজের সাথে সমন্বয় সৃষ্টি করে একটি এলাকার সার্বিক উন্নয়ন তরান্বিত করা খুবই সহজ। এর জন্য একটি কর্মমুখি পরিকল্পনা গ্রহণ করা দরকার বলে তিনি মনে করেন। তিনি আরো জানান, যুক্তরাষ্ট্রে সরকারী এবং ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ভ্রমণে আসা বর্তমান সরকারের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে তাঁর সুসম্পর্ক ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধন বিদ্যমান। এই সম্পর্কের দাবি নিয়ে তিনি এলাকার উন্নয়নে শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে সবধরনের সরকারীি সহযোগিতা পাবেন বলেও অভিমত ব্যক্ত করেন।

মোস্তফাপুর আলিম মাদরাসায় এক অনুষ্ঠানে

মোস্তফাপুর আলিম মাদরাসায় এক অনুষ্ঠানে

জামাল হোসাইন জানান, বর্তমানে তিনি প্রায় প্রতি বছরই নিজ এলাকায় আসেন এবং সাধ্যমতো কাজ করেন। যদি তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান এবং নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারেন, তাহলে নিজ উদ্যোগে এলাকায় ক্ষুদ্র পরিসরে কিছু শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তুলবেন। সেখানে এলাকার বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা সম্ভব হবে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন। তাছাড়াও, তরুণদের জন্য তিনি কর্মমুখি বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করবেন বলেও জানান। এলাকার শিশু-কিশোর, দরিদ্র বয়স্ক ব্যক্তিগণ, দরিদ্র বিধবা নারী এবং দরিদ্র গর্ভবতি মায়েদের জন্য তাঁর বিশেষ কিছু পরিকল্পনা রয়েছে বলেও তিনি জানান। তিনি নির্বাচিত হলে একটি জবাবদিহিমূলক ইউনিয়ন পরিষদ গঠন এবং পরিষদের প্রতিবছরের আয়-ব্যয়ের হিসাব পরিকল্পনা ইত্যাদি জনসম্মুখে প্রকাশের উদ্যোগ নিবেন বলে জানান।

তিনি আরো জানান, একটি এলাকাকে উন্নয়নের আওতায় আনতে হলে প্রয়োজন একটি সুন্দর পরিকল্পনা এবং পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য যথাযথ উদ্যোগ নিয়ে কাজ করা। বিগত দিনের দলীয় সম্পৃক্ততা, প্রবাসে নিরলস পরিশ্রম, এলাকার মানুষের ভালোবাসা, সমর্থন ও সহযোগিতা এবং ভবিষ্যতের জন্য ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা তাঁকে আসন্ন নির্বাচনে বিজয়ী হতে সহায়তা করবে বলে তিনি আশাবাদী।

নবীগঞ্জের ১৩টি ইউনিয়নে গ্যাসের দাবিতে মানববন্ধনে

নবীগঞ্জের ১৩টি ইউনিয়নে গ্যাসের দাবিতে মানববন্ধনে

ইনাতগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে তিনি দলীয় শীর্ষনেতৃবৃন্দ, এলাকার দলীয় নেতাকর্মী, সাধারণ জনগণ এবং ইউনিয়নের প্রবাসে বসবাসরত সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা, সমর্থন ও ভালোবাসা কামনা করেছেন।

বিশ্বনাথে অন্ত:সত্ত্বা স্ত্রী খুন : স্বামী আটক

সিলেট থেকে বিশেষ প্রতিনিধি: বিশ্বনাথে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালিমা আকতার হেলেনাকে (২০) ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্বামী নজরুল ইসলাম জুলফিকারকে (২৭) আটক করেছে পুলিশ। উপজেলার দিঘলী (খোজারপাড়া) গ্রাম থেকে শুক্রবার দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।বিশ্বনাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল হাই জানান, খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ঘাতক স্বামী জুলফিকারকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়েছে। ওসি জানান, হেলেনার দেহে একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। নিহত হেলেনা ৬-৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। তবে তাকে কেন হত্যা করা হয়েছে তা জানাতে পারেননি ওসি।

যুক্তরাজ্য প্রবাসী মজম্মিল হোসেনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

সিলেট সংবাদদাতা : সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, দেশে দারিদ্র বিমোচনে প্রবাসীরা অসামান্য অবদান রাখছেন। তিনি দেশের বর্তমান স্থিতিশীল পরিবেশে প্রবাসীদের দেশে এসে বিনিয়োগসহ দারিদ্র বিমোচনে অবদান রাখার আহবান জানান। তিনি বলেন তীব্র শীতে এলাকার শীতার্থ মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের সকলের দায়িত্ব।

Cloth Dist pic
তিনি সম্প্রতি জগন্নাথপুর উপজেলায় যুক্তরাজ্যের সাসেক্স আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি প্রবাসী মজম্মিল হোসেনের উদ্যোগে অসহায়-দরিদ মানুষের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথাগুলো বলেন। জগন্নাথপুরের কেউনবারী বাজার হসপিটালের মাঠে এ শীতবস্ত্র বিতরন উদ্বোধন করা হয়।
জগন্নাথপুরের আটঘর, হাসন ফাতেমাপুর, আমরাতৈল ও সমজ পুর এলাকার প্রায় সাড়ে ৬ শত জন মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এলাকার বিশিষ্ট মুরব্বী আলহাজ্ব মোহাম্মদ মখলিছ আলী। এতে প্রধান অতিথি হিশেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সিলেট ২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিশেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আকমল হোসেন, বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব পংকি খান, সাধারন সম্পাদক বাবুল আক্তার। মিরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ- সভাপতি মো: আফজল খানের পরিচালনায় অনন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আব্দুস শহিদ খান, দেলোয়ার হোসেন, এমেল মিয়া ও রফা মিয়া প্রমুখ।

বাংলাদেশের মানুষ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী- নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর চৌধুরী

নবীগঞ্জ থেকে উত্তম কুমার পাল হিমেলঃ ধর্ম যার যার উতসব সবার, যুগ যুগ ধরে বাংলাদেশে এমন রীতিই চলে আসছে। বাংলাদেশের মানুষ সাম্প্রদায়িক সম্পৃতিতে বিশ্বাসী। আমাদের সাম্প্রদায়িক সম্পৃতির বন্ধনকে আরো সুদৃঢ় করতে কাজ করছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার, এমন্তব্য নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আলমগীর চৌধুরীর । গত শনিবার কুর্শি ইউনিয়নের রতনপুর জমিদার বাড়ীতে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক সুশীতল রায়ের আমন্ত্রনে পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষ্যে আয়োজি অনুষ্টানে তিনি এমন্তব্য করেন। অনুষ্টানে অতিথি হিসাবে যোগদান করেন হবিগঞ্জ ১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের এমপি এম এ মুিনম চৌধুরী বাবু,নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর চৌধুরী, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সিনিয়র যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি প্রভাষক উত্তম কুমার পাল হিমেল,নবনির্বাচিত পৌর কাউন্সিলর যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন জাকি,নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের অফিস সম্পাদক মতিউর রহমান মুন্না । এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্চ্চোসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক উজ্বল সরদার, সাবেক ইউপি মেম্বার আব্দুস সোবহান, ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা হাফিজুর রহমান, হাবিবুর রহমান ,পল্টু রায়, সুব্রত রায়, পিন্টু রায়, পলাশ রায়,শুভ্র রায় প্রমূখ ।

নবীগঞ্জে নারী উন্নয়ন ফোরামের উদ্যোগে কলেজ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

নবীগঞ্জ থেকে উত্তম কুমার পাল হিমেল:নবীগঞ্জ উপজেলা নারী উন্নয়ন ফোরামের উদ্যোগে নবীগঞ্জ বিশ্ব বিদ্যালয় কলেজের শিক্ষার্থীর মধ্যে খেলাধুলার সরঞ্জামাধী বিতরণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল বুধবার দুপুরে কলেজ ক্যাম্পাসে হল রোমে এক অনুষ্ঠান কলেজ অধ্যক্ষ গোলাম হোসেন আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারী উন্নয়ন ফোরামের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) নাজমা বেগম। বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌরসভার কাউন্সিলর ও প্রেস ক্লাব সভাপতি এটিএম সালাম। কলেজ শিক্ষক রেজাউল আলমের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক অসীম কুমার রায়, শাহ ফুয়াদ ইমাম, রাফু বেগম, মাহিমা আক্তার, নারী উন্নয়ন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মরিয়ব বেগম, সুরাইয়া আক্তার ডলি, তাকমিনা আক্তার, রেনু বেগম, সাজনা বেগম, কলেজ ছাত্রী ইসরাত জাহান, বিল্পবী রায়, শিফা বেগম, ছাত্র আব্দুল আজিজ ও আবু হানী বেগম। পরে অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ফুটবল, কেরামবোর্ড, দাবাসহ বিভিন্ন খেলাধুলার সরঞ্জামাদি তোলে দেন।

Scroll To Top

Design & Developed BY www.helalhostbd.net