শিরোনাম

Monthly Archives: মার্চ ২০১৫

ঢাকা বিমানবন্দরে কোটি টাকার সোনাসহ নারী আটক

gold-barআটক মাহমুদা হোসেন (২৬) সোমবার মধ্যরাতে মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকায় আসেন।

শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের মহাপরিচালক মইনুল খান বলেন, মাহমুদার জুতার ভেতরে চারটি সোনার বার পাওয়া গেছে। সেগুলোর ওজন আড়াই কেজি।

এসব সোনার আনুমানিক বাজার মূল্য এক কোটি ২২ লাখ টাকা বলে জানান তিনি।

এছাড়া মাহমুদার সঙ্গে একই ফ্লাইটে আসা নুরুল্লাহ নূর (৪৫) নামে আরেকজনের কাছ থেকে আটটি সোনার বার উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান মইনুল খান।

প্রায় আটশ গ্রাম ওজনের এসব সোনার আনুমানিক বাজার মূল্য ৪০ লাখ টাকা বলে জানান তিনি।

দুজনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলে জানান গুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের এই কর্মকর্তা।

সৌদিতে বাংলাদেশিসহ চারজনকে হত্যায় দুই পাকিস্তানি গ্রেপ্তার

সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গ্রেপ্তাররা হলেন- আসাদ জান (২৪) ও আদম খান (২২)।

গ্রেপ্তারের পর তারা দুজনই হত্যার কথা স্বীকার করেছেন বলে সোমবার প্রকাশিত সৌদি গেজেটের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ঘাতকদের একজনের সাবেক প্রেমিকা এক শ্রীলঙ্কান নারীর সঙ্গে সম্পর্কের জন্য এক ভারতীয়কে ভুলিয়েভালিয়ে মরু এলাকায় নিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করেন বলে তারা জানিয়েছেন।

হত্যার পর তারা ওই ভারতীয়ের মরদেহ একটি কম্বলে মুড়িয়ে একটি ওয়ারহাউজের পিছনে মাটিতে পুঁতে ফেলেন। নিহত ব্যক্তি যে গাড়িতে এসেছিলেন সেই গাড়িটি নিয়ে তারা অন্য জেলা আল-ফাতাহর একটি বিপণীবিতানের পিছনে রাখেন।

এই হত্যাকাণ্ডের এক সপ্তাহ পর আরেক পাকিস্তানির কাছ থেকে গাঁজা কেনার টাকার প্রয়োজন পড়ে ঘাতকদের।

এরপর ত্রিশের কোঠায় বয়সী এক বাংলাদেশি ট্যাক্সিচালককে ভাড়া করে আল-সাহাফা জেলায় নিয়ে যান তারা। সেখানে পৌঁছানোর পর একজন তার গলা টিপে ধরেন এবং অন্যজন পকেট থেকে ছুরি বের করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করেন।

ওই বাংলাদেশিকে হত্যার পর তার কাছে থাকা টাকা ও অন্যান্য জিনিসপত্র নিয়ে নেন তারা। এরপর আগের হত্যাকাণ্ডের পর নেওয়া গাড়ি, যেটা একটি বিপণীবিতানের পিছনে রাখা হয়েছিল তাতে তার মরদেহ রাখেন দুই খুনি।

এরপর একইভাবে আরেক ভারতীয়কে হত্যার পর আল-আরিদ জেলায় কাঠের স্তূপের নিচে তার মরদেহ লুকিয়ে রাখেন তারা। এ সময়ও ওই ভারতীয়ের গাড়ি নিয়ে তাতে অন্য একটি লাইসেন্স প্লেট লাগান দুই ঘাতক।

একইভাবে চতুর্থ ব্যক্তিকে হত্যা করেন তারা। এবার তাদের শিকার হন চল্লিশের কোঠায় বয়সী এক বাংলাদেশি ট্যাক্সিচালক। তার মরদেহ আল-আরিদ জেলায় মাটিতে পুঁতে রাখা হয়।

গোয়েন্দা ও তদন্ত দপ্তরের কর্মকর্তারা সবগুলো লাশ ও গাড়ি উদ্ধার করেছেন।

এসব ঘটনার আগেও গাঁজার টাকা সংগ্রহে একটি গাড়ি চুরি করে তার ইঞ্জিন ও যন্ত্রাংশ আলাদা আলাদা বিক্রির কথা দুই পাকিস্তানি স্বীকার করেছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

আল-ফাতাহ জেলায় ওই বিপণীবিতানের পিছনে একটি গাড়ি থেকে দুর্গন্ধ আসার পর সেখানে মরদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পুলিশ গাড়ি থেকে একটি মৃতদেহ উদ্ধার করে, যার পেট ও হাতে পাঁচটি কোপের চিহ্ন ছিল।

গাড়িটি চুরি হওয়ার বিষয়টি বোঝার পর মামলাটি গোয়েন্দা ও তদন্ত দপ্তরে পাঠায় পুলিশ।

ওয়াশিকুরহত্যা: চার জনকে আসামি করে মামলা

আমাসিরা wasikurহলেন, গ্রেপ্তার হওয়া জিকরুল্লাহ ও আরিফুল ছাড়াও আবু তাহের ও মাসুম নামে আরও দুই জন।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি মো. সালাহ উদ্দিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওয়াশিকুর রহমান বাবুর ভগ্নিপতি মনির হোসেন মাসুদ বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন।”

গ্রেপ্তার দুই জনের প্রাথমিক স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আবু তাহের ও মাসুমের নাম দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

তেজগাঁও জোনের পুলিশের একজন সহকারী কমিশনার নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, “মাসুমই তিনজনকে দক্ষিন বেগুন বাড়ির ওই স্থান দেখিয়ে ওয়াশিকুরকে হত্যার কথা বলেন। গ্রেপ্তারকৃত দুই জন একে আপরকে চিনেন না এবং আগে তাদের কখনও দেখাও হয়নি।”

তিনি বলেন, তারা যে ধরনের তথ্য দিচ্ছেন তা যাচাই বাছাই করা হচ্ছে।

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলের বেগুনবাড়িতে সোমবার সকালে এই হত্যাকাণ্ডের পরপরই জনতা ধাওয়া করে ওই দুই জনকে ধরে ফেলে। তিন হামলাকারীর মধ্যে এই দুই জন ছিলেন বলে স্থানীয়দের দাবি।
তাদের গোয়েন্দা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ধর্মীয় মতাদর্শ নিয়ে লেখালেখির কারণে বিরোধ থেকে ওয়াশিকুরকে হত্যার কথা গ্রেপ্তার দুজন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

২৭ বছর বয়সী ওয়াশিকুর তেজগাঁও কলেজ থেকে লেখাপড়া শেষ করে মতিঝিলের ফারইস্ট এভিয়েশন নামের একটি ট্র্যাভেল এজেন্সিতে প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছিলেন। তার বাবার নাম টিপু সুলতান, বাড়ি লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার হাজীপুর গ্রামে।

সামহোয়্যারইন ব্লগে ‘বোকা মানব’ নামে একটি অ্যাকাউন্ট থাকলেও তিনি মূলত লেখালেখি করতেন ফেইসবুকের কয়েকটি অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে।

এর আগে হত্যাকাণ্ডগুলোর সময় আনসারুল্লা বাংলা টিমসহ কয়েকটি জঙ্গি সংগঠনের নাম এলেও জিকরুল ও আরিফুল কোনো সংগঠনে জড়িত কি না, তা এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

এদিকে ওয়াশিকুরের মৃতদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গ থেকে সোমবার রাতে লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

Scroll To Top

Design & Developed BY www.helalhostbd.net