শিরোনাম

Daily Archives: ১ অক্টোবর ২০১৭

ব্রিটিশ কারি ইন্ডাষ্ট্রিতে ষ্টাফ সংকট ২০,০০০ হাজার লন্ডনে টেকওয়ে এন্ড রেষ্টুরেন্ট এক্সপোতে কিনোট স্পীকারের বক্তব্যে অলি খান

লন্ডনঃ লন্ডনে দু’দিনব্যাপী টেকওয়ে এন্ড রেষ্টুরেন্ট ইনোভেশন এক্সপো ২০১৭’র অপেনিং অনুষ্টানে তুলে ধরা হলো ক্যাটারিং ইন্ডাষ্ট্রির ষ্টাফ সংকট সহ বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার চিত্র। ২৬ এবং ২৭ সেপ্টেম্বর দু‘দিন ব্যাপী লন্ডনের এক্সেল সেন্টারে ইউরোপের সবচেয়ে বড় ফুড ইন্ডাষ্ট্রির এই ইনোভেশনটি প্রতিদিন সকাল দশটা থেকে চলে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত। এতে আয়োজন করা হয় ১৫০টি ফ্রি-সেমিনার, ৩০০টি সাপ্লায়ারের প্রদর্শনী ছিল এর অন্যতম আকর্ষন।
প্রথম দিন অপেনিং অনুষ্টানে কী-নোট স্পীকারের বক্তব্যে বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ) এর সেক্রেটারী জেনারেল সেলবরিটি শেফ অলি খান ব্রিটিশ কারি ইন্ডাষ্ট্রির ষ্টাফ সংকট সহ এই সেক্টরের সার্বিক চিত্র তুলে বলেন, বর্তমানে এই সেক্টরে শেফ ওয়াইটার সহ অন্যান্য ষ্টাফের সংকট রয়েছে। এই সেক্টরে নন-ইউরোপীয়ান মাইগ্রেনটরা কাজ করলেও তাদের দ্বারা সকল কাজ করানো সম্ভব নয়। এই সেক্টরকে ঠিকিয়ে রাখতে হলে বাহির থেকে শেফ আমদানীর ছাড়া অন্য কোন বিকল্প নেই, আমরা দীর্ঘ দিন যাবত বাহির থেকে শেফ ওয়াইটার সহ দক্ষ ষ্টাফ আনার দাবী জানিয়ে আসছি। তিনি বলেন ক্যাটারিং সেক্টরে কাজের প্রচুর সুযোগ রয়েছে যারা কাজ করতে আগ্রহী আমরা তাদের ট্রেনিং সহ সব ধরনের সুযোগ সুবিদা প্রদান করে থাকি।
takewy ex-2takeway expo-3
অলি খান আরো বলেন আজ থেকে দুইশ বছর আগে বৃটেনে প্রথম করি হাউজের যাত্র শুরু হলেও এটি দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। চিকেন টিক্কা মসল্লা এখন ব্রিটিশ ক্যালচারের অংশ হয়ে দাড়িয়েছে। কারিশিল্পের বিকাশ ঘটানোর লক্ষ্যে ১৯৬০ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয় বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসোসিয়েন (বিসিএ)। বর্তমানে বিসিএ বৃটেনে ১২হাজার রেষ্টুরেন্ট এবং টেকওয়ের প্রতিনিধিত্ব করছে। এই সেক্টরে কর্মরত রয়েছে লক্ষাধিক মানুষ। কারি ইন্ডাষ্ট্রি বৃটেনের অর্থনীততে যোগান দিচ্ছে ৪.৫ বিলিয়ন পাউন্ড। বর্তমানে এই ইন্ডাষ্ট্রিতে ২০,০০০ দক্ষ এবং অদক্ষ ষ্টাফের অভাব রয়েছে।
এই অনুষ্টানে ক্যাটারিং সেক্টরের বিশেষজ্ঞরা তাদের মতামত তুলে ধরেন। বংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল ইয়াকুব বলেন অনলাইন অর্ডারিং সিষ্টেম এবং আ্যপস সহ আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার খুবই জরুরী। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে লোকবল যেমন কম লাগে অন্যদিকে দ্রুত কাজ করা সম্ভব এবং সা¯্রয়ী।
অন্যান্য বক্তারা এর ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোকপাত করেন। অন্যানের মধ্যে অপেনিং অনুষ্টানে আরো বক্তব্য রাখেন, ম্যানেজিং ডিরেক্টর অব টেকওয়ে এক্সপো জেমস উইলিয়াম, আ্যবিল কমপস ডারেক্টর অব ফান্সসাইজ জেসন ম্যাকডনাল্ডস, জাষ্ট ইটের মার্কেটিং ডিরেক্টর গ্রাহাম ক্ররফিল্ড, এছাড়া অন্যান্য সেক্টর থেকে বক্তারা তাদের নিজস্ব মতামত তুলে ধরেন।
এক্সপোতে বক্তারা বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসিয়েশনকে একটি আমব্রেলা সংগঠন হিসেবে উল্লেখ করে বলেন এই সংগঠনটি সমগ্র গ্রেটবৃটেনে ১৬টি রিজিওনাল কমিটির মাধ্যমে ১২ হাজার ব্রিটিশ বাংলাদেশী রেষ্টুরেন্ট এবং টেকওয়ের প্রতিনিধিত্ব করছে। এক্সপোতে বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ) এর পক্ষ থেকে আরো উপস্থিত ছিলেন সাইদুর রহমান বিপুল চীপ ট্রেজারার, অর্গেনাইজিং সেক্রেটারী মিঠু চৌধুরী, মেম্বারশীফ সেকেটারী সাইফুল আলম, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারী ফরহাদ হোসেন টিপু, বিসিএ’র অফিস ম্যানেজার আলী বাবর, ব্রেন্ট কাউন্সিলের সাবেক মেয়র কাউন্সিলার পারভেজ আহমদ, জয়েন্ট চীপ ট্রেজারার ফয়জুল হক, বিসিএ‘র ভাইস প্রেসিডেন্ট মাসুদ আহমেদ, ফিরোজুল হক, নাজাম উদ্দিন নজরুল, হেলাল মালিক, সেলেবরিটি শেফ আতিক রহমান,আতাউর রহমান লায়েক, সিদ্দিক রহমান সহ আরো অনেকে।

ব্রিটিশ কারি ইন্ডাষ্ট্রিতে ষ্টাফ সংকট ২০,০০০ হাজার লন্ডনে টেকওয়ে এন্ড রেষ্টুরেন্ট এক্সপোতে কিনোট স্পীকারের বক্তব্যে অলি খান

লন্ডনঃ লন্ডনে দু’দিনব্যাপী টেকওয়ে এন্ড রেষ্টুরেন্ট ইনোভেশন এক্সপো ২০১৭’র অপেনিং অনুষ্টানে তুলে ধরা হলো ক্যাটারিং ইন্ডাষ্ট্রির ষ্টাফ সংকট সহ বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনার চিত্র। ২৬ এবং ২৭ সেপ্টেম্বর দু‘দিন ব্যাপী লন্ডনের এক্সেল সেন্টারে ইউরোপের সবচেয়ে বড় ফুড ইন্ডাষ্ট্রির এই ইনোভেশনটি প্রতিদিন সকাল দশটা থেকে চলে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত। এতে আয়োজন করা হয় ১৫০টি ফ্রি-সেমিনার, ৩০০টি সাপ্লায়ারের প্রদর্শনী ছিল এর অন্যতম আকর্ষন।
প্রথম দিন অপেনিং অনুষ্টানে কী-নোট স্পীকারের বক্তব্যে বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ) এর সেক্রেটারী জেনারেল সেলবরিটি শেফ অলি খান ব্রিটিশ কারি ইন্ডাষ্ট্রির ষ্টাফ সংকট সহ এই সেক্টরের সার্বিক চিত্র তুলে বলেন, বর্তমানে এই সেক্টরে শেফ ওয়াইটার সহ অন্যান্য ষ্টাফের সংকট রয়েছে। এই সেক্টরে নন-ইউরোপীয়ান মাইগ্রেনটরা কাজ করলেও তাদের দ্বারা সকল কাজ করানো সম্ভব নয়। এই সেক্টরকে ঠিকিয়ে রাখতে হলে বাহির থেকে শেফ আমদানীর ছাড়া অন্য কোন বিকল্প নেই, আমরা দীর্ঘ দিন যাবত বাহির থেকে শেফ ওয়াইটার সহ দক্ষ ষ্টাফ আনার দাবী জানিয়ে আসছি। তিনি বলেন ক্যাটারিং সেক্টরে কাজের প্রচুর সুযোগ রয়েছে যারা কাজ করতে আগ্রহী আমরা তাদের ট্রেনিং সহ সব ধরনের সুযোগ সুবিদা প্রদান করে থাকি।
takeway expo-3
অলি খান আরো বলেন আজ থেকে দুইশ বছর আগে বৃটেনে প্রথম করি হাউজের যাত্র শুরু হলেও এটি দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। চিকেন টিক্কা মসল্লা এখন ব্রিটিশ ক্যালচারের অংশ হয়ে দাড়িয়েছে। কারিশিল্পের বিকাশ ঘটানোর লক্ষ্যে ১৯৬০ সালে প্রতিষ্ঠা করা হয় বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসোসিয়েন (বিসিএ)। বর্তমানে বিসিএ বৃটেনে ১২হাজার রেষ্টুরেন্ট এবং টেকওয়ের প্রতিনিধিত্ব করছে। এই সেক্টরে কর্মরত রয়েছে লক্ষাধিক মানুষ। কারি ইন্ডাষ্ট্রি বৃটেনের অর্থনীততে যোগান দিচ্ছে ৪.৫ বিলিয়ন পাউন্ড। বর্তমানে এই ইন্ডাষ্ট্রিতে ২০,০০০ দক্ষ এবং অদক্ষ ষ্টাফের অভাব রয়েছে।
takewy ex-4takewy ex-4
এই অনুষ্টানে ক্যাটারিং সেক্টরের বিশেষজ্ঞরা তাদের মতামত তুলে ধরেন। বংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল ইয়াকুব বলেন অনলাইন অর্ডারিং সিষ্টেম এবং আ্যপস সহ আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার খুবই জরুরী। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে লোকবল যেমন কম লাগে অন্যদিকে দ্রুত কাজ করা সম্ভব এবং সা¯্রয়ী।
অন্যান্য বক্তারা এর ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোকপাত করেন। অন্যানের মধ্যে অপেনিং অনুষ্টানে আরো বক্তব্য রাখেন, ম্যানেজিং ডিরেক্টর অব টেকওয়ে এক্সপো জেমস উইলিয়াম, আ্যবিল কমপস ডারেক্টর অব ফান্সসাইজ জেসন ম্যাকডনাল্ডস, জাষ্ট ইটের মার্কেটিং ডিরেক্টর গ্রাহাম ক্ররফিল্ড, এছাড়া অন্যান্য সেক্টর থেকে বক্তারা তাদের নিজস্ব মতামত তুলে ধরেন।
takeway expo-2
এক্সপোতে বক্তারা বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসিয়েশনকে একটি আমব্রেলা সংগঠন হিসেবে উল্লেখ করে বলেন এই সংগঠনটি সমগ্র গ্রেটবৃটেনে ১৬টি রিজিওনাল কমিটির মাধ্যমে ১২ হাজার ব্রিটিশ বাংলাদেশী রেষ্টুরেন্ট এবং টেকওয়ের প্রতিনিধিত্ব করছে। এক্সপোতে বাংলাদেশ ক্যাটারারর্স এ্যাসোসিয়েশন (বিসিএ) এর পক্ষ থেকে আরো উপস্থিত ছিলেন সাইদুর রহমান বিপুল চীপ ট্রেজারার, অর্গেনাইজিং সেক্রেটারী মিঠু চৌধুরী, মেম্বারশীফ সেকেটারী সাইফুল আলম, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারী ফরহাদ হোসেন টিপু, বিসিএ’র অফিস ম্যানেজার আলী বাবর, ব্রেন্ট কাউন্সিলের সাবেক মেয়র কাউন্সিলার পারভেজ আহমদ, জয়েন্ট চীপ ট্রেজারার ফয়জুল হক, বিসিএ‘র ভাইস প্রেসিডেন্ট মাসুদ আহমেদ, ফিরোজুল হক, নাজাম উদ্দিন নজরুল, হেলাল মালিক, সেলেবরিটি শেফ আতিক রহমান,আতাউর রহমান লায়েক, সিদ্দিক রহমান সহ আরো অনেকে।

নবীগঞ্জে ঘরে আগুন থানায় অভিযোগ বৃষ্টির মধ্যে ছিলনা বিদ্যুৎ ভেন্টিলেটার ভাঙ্গা নিয়ে রহস্য

উত্তম কুমার পাল হিমেল- নবীগঞ্জ(হবিগঞ্জ)থেকেঃ নবীগঞ্জ পৌর শহরে ‘রহস্যজনক ভাবে’ ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে একটি বসত ঘর সম্পূর্ণ পুঁড়ে ছাই হয়ে গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে পৌর শহরের আনমনু রোডে শিবপাশা এলাকায় হিমাশু শেখর দাশ’র বসত ঘরে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে কম পক্ষে ২০ লক্ষাধীক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা স্থানীয়দের। অনেকেই বলছেন, গ্যাসের চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত আবার কেউ কেউ তা মানতে নারাজ কারণ যখন অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে তখন বৃষ্টির কারণে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ ছিল। এর মধ্যে ভেন্টিলেটার ভাঙ্গা নিয়েও নানা রহস্যের ধাঁনা বেধেছে। ঘটনার খবর পেয়ে সরজমিনে পরিদর্শন করেছেন সিলেট এর এডিশনাল ডিআইজি নজরুল ইসলাম ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিবৃন্দ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে নবীগঞ্জ পৌর এলাকার শিবপাশা আনমনু রোডের দিবাংশু শেখর দাশ রিন্টু’র বাড়ির লোকজন ঘরে তালা দিয়ে দুর্গাপূজা উৎযাপন করতে আশেপাশের পূজা মন্ডপে যান। রাত সাড়ে ৮ টায় হঠাৎ দিবাংশু শেখর দাশ এর বাড়িতে দাউ দাউ করে আগুন জ¦লতে দেখতে পান স্থানীয় লোকজন। তখন তাদের পরিবারের সদস্যরা অনুপস্থিত ছিল। মূহুর্তের মধ্যেই আগুনের লেলিহান শিখা দাউ দাউ করে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে আশেপাশের মানুষ ওই বাড়ীতে দৌড়ে ছুটে আসেন। অনেক চেষ্টা করেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ব্যর্থ হয়ে নবীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। এর কিছুক্ষনের মধ্যে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে প্রাণপন প্রচেষ্টায় ১ ঘন্টা পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হন। কিন্তু এর আগেই হিমাংশু শেখর দাশ’র বসত ঘর সম্পূর্ণ পুঁড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে, স্বর্ণ, আসবাবপত্র, কম্পিউটার, নগদ অর্থ সহ অন্তত ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হয়েছে ।
দিবাংশু শেখর দাশ ও স্থানীয়দের ভাষ্যে দীর্ঘদিন ধরে তাদের জায়গা জমি সহ বিভিন্ন বিষয়াদী নিয়ে এলাকার কয়েক পক্ষের সাথে বিরুধ চলে আসছে। এই অগ্নিকান্ড কোন শত্রুপক্ষের ষড়যন্ত্রও হতে পারে বলে মনে করেন তিনি। কারন অগ্নিকান্ডেরে সময় বৃষ্টি হচ্ছিল এমনকি বিদ্যুৎ ব্যবস্থাও বন্ধ ছিল। তবে অবাক কান্ড হচ্ছে একটি ভেন্টিলেটারে ভাঙ্গার কিছু আলামত পাওয়া গেছে বলেও সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে। এ ব্যাপারে দিবাংশু শেখর দাশ রিন্টু বাদী হয়ে গত শনিবার নবীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ তৈয়ব আলী হাওলাদার জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনি । তবে কিভাবে আগুনের সূত্রপাত হয় তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা।
এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, সিলেট এর এডিশনাল ডিআইজি নজরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলমগীর চৌধুরী, থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আতাউর রহমান, পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, নবীগঞ্জ উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি নারায়ন রায়,সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার পাল হিমেল, পৌর সভার প্যানেল মেয়র এটিএম সালাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমেদ মিলুুসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Scroll To Top

Design & Developed BY www.helalhostbd.net