শিরোনাম
খেলা নাহওয়ারই সম্ভাবনা বেশী দুই ফাইনালিস্ট বাংলাদেশ-ভারতকে  যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হতে পারে

খেলা নাহওয়ারই সম্ভাবনা বেশী দুই ফাইনালিস্ট বাংলাদেশ-ভারতকে  যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হতে পারে

ঢাকা থেকে ক্রীড়া সংবাদদাতাঃ প্রতীক্ষার ফাইনালে বাগড়া দিয়ে আপাতত জিরিয়ে নিচ্ছে বেরসিক বৃষ্টি। এই ফাঁকে চলছে মাঠ কর্মীদের তৎপরতা। খেলার উপযোগী হিসেবে মাঠকে গড়ে তুলতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।এদিকে খেলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে সাড়ে ৮টার দিকে মাঠ পরিদর্শন করবেন আম্পায়ররা। কর্তৃপক্ষ বলছে খেলা শুরুর শেষ সময় নির্ধারণ করা হয়েছে রাত ১০টা ৪০মিনিট।  এর আগে রোববার সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে রাজধানীর মিরপুর স্টেডিয়ামে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়তে শুরু করে। এ সময় খেলার জন্য তৈরি পিচ দ্রুত ঢেকে ফেলা হয়। মিনিটে দশেক পর বৃষ্টি থামে। সরিয়ে নেয়া হয় পিচ কাভার।তবে এর কিছুক্ষণ পরই দ্বিতীয় দফায় বৃষ্টির সঙ্গে শুরু হয় ঝড়ো হাওয়া। এতে মিরপুর স্টেডিয়ামে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। অন্ধকারে ঢেকে যায় পুরো স্টেডিয়াম। প্রায় ৩০ মিনিট পর স্টেডিয়ামের বিদ্যুৎ সংযোগ পুনঃস্থাপিত হয়। তবে ঝড়ের কবলে পড়ে স্টেডিয়ামের জায়ান্ট স্ক্রিনটি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ঝড়ে অন্য একটি সাইড স্ক্রিনটিও ক্ষতিগ্রস্থ হয়।ক্রিকেট সংশ্লিষ্টদের মতে, প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী শেষ পর্যন্ত ডাকওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে গড়াতে পারে ফাইনাল ম্যাচ। এর ফলে অন্তত ৫ ওভারের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে পারে। আর যদি বৃষ্টির কারণে শেষ পর্যন্ত একটি বলও না গড়ায়, ম্যাচ হয়ে যাবে পরিত্যক্ত। দুই ফাইনালিস্ট বাংলাদেশ-ভারতকে তখন যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হবে।আশার কথা হলো- আবহাওয়া দফতরের তথ্য মতে খেলা চলাকালীন সময়ে আর বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই।

 

Scroll To Top

Design & Developed BY www.helalhostbd.net