শিরোনাম
প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের জয়

প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের জয়

সংবাদ২৪ ডেস্ক: প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে সিডনি সিক্সার্সকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে বিসিবি একাদশ। ৮ ওভারে ৮৪ রানের লক্ষ্যটা শেষ ওভারে ছুঁয়েছেন মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ।

সিডনি ওভালে এই টি-টোয়েন্টি ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১৬৯ রান করেছিল সিডনি সিক্সার্স। বৃষ্টি আইনে ৮ ওভারে ৮৪ রানের লক্ষ্য দাঁড়ায় বাংলাদেশের। শুরুটা দারুণ করেছেন সৌম্য সরকার ও ইমরুল কায়েস। প্রথম ওভারেই ১৭ রান তুলে ফেলেছেন দুজন। দ্বিতীয় ওভারে ১২ রান তোলার পর আউট হয়েছেন ইমরুল। তবে পরের দুই ওভারে ধাক্কা খেয়েছিল বাংলাদেশের ইনিংস। ৩৭ রানের মধ্যে ফিরেছেন সাব্বির রহমান ও সৌম্য। ৪ ওভারে ৪৩ রানের পরই দলকে জয়ের আশা দেখান মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ।

পঞ্চম ওভারে ১৯ রান তুলে পরের দুই ওভারে ১০ রান করে তুলেছেন দলের দুই ব্যাটিং ভরসা। শেষ ওভারে মাত্র ২ রান প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। দলকে আর কোনো ঝামেলা পোহাতে দেননি এ দুজন, ৭ উইকেটের জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। গত বিপিএলের সেরা খেলোয়াড় মাহমুদউল্লাহ ১৩ বলে ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। তিনটি করে চার ও দুটি ছক্কা মেরেছেন। মুশফিক ৮ বলে ২টি চারে করেছেন অপরাজিত ১৫। সৌম্য ৯ বলে এক ছক্কা ও তিন চারে করেছেন ২০। ইমরুল ৭ বলে ১২। তিনিও একটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন। সাব্বির ৩ বলে ১।

বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতেও সবচেয়ে বড় চমক দেখিয়েছেন সৌম্য। ১ ওভারে ৫ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট। সৌম্যের করা ইনিংসের শেষ ওভারটা এমন না হলে বাংলাদেশের লক্ষ্য আরও বড় হয়ে যেত। তাসকিন ও তাইজুল দুজনই ৪ ওভারে ৩৮ রানে ২ উইকেট করে নিয়েছেন। মাশরাফি ২৯ রানে ১ উইকেট। আর ইংল্যান্ড সিরিজের চমক মেহেদী মিরাজ ১ ওভারে ৭ রানে ১ উইকেট।

প্রস্তুতি ম্যাচ, তবু এর গুরুত্ব কমছে না। সিডনি সিক্সার্স বিগ ব্যাশের বড় দলগুলোর একটি। সাবেক চ্যাম্পিয়নও তারা। তবে প্রতিপক্ষ দলের চেয়ে প্রথম ম্যাচে সব সময়ই বড় প্রতিপক্ষ হয়ে ওঠে যাত্রার ধকল আর ভিন্ন কন্ডিশন। সেটি মানিয়ে নিয়ে বৃষ্টিতে কমে আসা ম্যাচের দৈর্ঘ্যের চ্যালেঞ্জ সামলে জেতা অবশ্যই বড় স্বস্তির। দ্বিতীয় ও শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ সিডনি থান্ডারের বিপক্ষে, আগামী ১৬ই ডিসেম্বর।

ম্যাচটি দেখতে বেশ ভালো সংখ্যায় প্রবাসী বাঙালি মাঠে গিয়েছিলেন। বাংলাদেশ–বাংলাদেশ গর্জনে গ্যালারি কাঁপিয়েছেন। ১৬ ডিসেম্বর ভিড়টা আরও বড় হবে, সন্দেহ নেই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
সিডনি সিক্সার্স: ২০ ওভারে ১৬৯/৯ (হিউজ ৪৭, জেসন রয় ৪২; সৌম্য ৩/৫, তাসকিন ২/৩৮, তাইজুল ২/৩৮, মিরাজ ১/৭, মাশরাফি ১/২৯)।
বিসিবি একাদশ (লক্ষ্য ৮ ওভারে ৮৪): ৬.৪ ওভারে ৮৪/৩ (মাহমুদউল্লাহ ২৮*, সৌম্য ২০, মুশফিক ১৫*, ইমরুল ১২, সাব্বির ১)।
ফল: বিসিবি একাদশ ৭ উইকেটে জয়ী।

Scroll To Top

Design & Developed BY www.helalhostbd.net